শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন

হত্যার চেয়ে অ্যাসিড নিক্ষেপ বা ধর্ষণের অপরাধ কি কোন অংশে কম?

সুদীপ্ত শামীম
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২২

সুদীপ্ত শামীম

ব্যাটারি চালিত অটোভ্যান চালক খলিলুর রহমানের গলায় গামছা পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ভ্যান ছিনতাইয়ের ঘটনায় দুইজন আসামিকে গ্রেফতার করায় প্রশংসায় ভাসছে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশ। এটি আজ ‘টক অব দ্যা টাউন’ এ পরিণত হয়েছে।
আমিও পুলিশ বাহিনীকে অভিনন্দন জানাই ঘটনার ২৪ ঘন্টার মধ্যেই ছিনতাই হয়ে যাওয়া অটোভ্যানটি উদ্ধার করায়। ভ্যানটি উদ্ধারের ৪৮ ঘন্টা না পেরুতেই ঘটনার সঙ্গে জড়িত দুই আসামিকে গ্রেফতার করে কারাগারে পাঠিয়েছে একদল চৌকস পুলিশ সদস্য। এসব কারণে পুলিশ বাহিনী ধন্যবাদ, অভিনন্দন ও প্রশংসা পাওয়ার দাবিদার।
আচ্ছা, কয়েকদিন আগের একটা লোমহর্ষক ঘটনা কি আপনাদের স্মরণ আছে? আপনারা কি মেধাবী শিক্ষার্থী আসাদ মন্ডল আর তার ছোট ভাই তনু মন্ডলকে চিনেন? আসাদ মন্ডল চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স প্রথম বর্ষের মেধাবী শিক্ষার্থী আর তার ছোট ভাই তনু মন্ডল আমাদের উপজেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ সুন্দরগঞ্জ আব্দুল মজিদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থী। তাদের কি ঘটেছিল আপনারা কি তা জানেন? জমি নিয়ে বিরোধের জেরে আপন চাচা রাতের আঁধারে ঘুমন্ত দুই ভাইকে অ্যাসিড নিক্ষেপ ঝলছে দিয়েছিল। আসাদ এখনো বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন। শুনলাম আজ রোববার (২৩ অক্টোবর) আসাদ মন্ডলের শরীরে সার্জারি করা হবে।
ঘটনাটি গত সেপ্টেম্বর মাসের ২৯ রাতে উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের সাহাবাজ গ্রামে ঘটেছে। ঘটনার দুইদিন পর দুইভাইকে অ্যাসিড নিক্ষেপের অভিযোগে রাশেদুল ইসলাম ওরফে সুমন মন্ডলসহ তিনজনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা করেন দগ্ধ শিক্ষার্থীদের মা আনোয়ারা বেগম। পরে গত ৮ অক্টোবর অ্যাসিড নিক্ষেপকারীদের বিচারের দাবিতে সুন্দরগঞ্জ শহরে প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে সুন্দরগঞ্জ আব্দুল মজিদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি ২০১৯ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা। এঘটনার প্রায় এক মাস হলেও অ্যাসিড নিক্ষেপকারীরা কি গ্রেফতার হয়েছে? তাদেরকে পুলিশ কেন ধরতে পারছেনা? অপরাধীরা কি পুলিশ বাহিনীর চেয়েও শক্তিশালী?
শুধু এঘটনাটিই নয়, আরও একটি ঘটনা তুলে ধরছি। গত ৫ সেপ্টেম্বর কোচিং এ যাওয়ার পথে উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের চন্দ্র গ্রামে নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত কালছার ইসলাম কাজল বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের মনিরাম কাজি (মালতোলা) গ্রামের বাসিন্দা। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়া হলেও কাজল এখনো বাইরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বলে দাবি মেয়েটির পরিবারের। অন্যদিকে ভুক্তভোগী প্রতিবন্ধী কিশোরী প্রায় দুই মাস ধরে বিদ্যালয়ে যাচ্ছে না বলে তার শিক্ষকেরা নিশ্চিত করেছেন।
প্রতিবন্ধী স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের প্রায় দুই মাস হতে চললেও অভিযুক্ত আসামি কালছার ইসলাম কাজলকে আমাদের চৌকস পুলিশ বাহিনী এখনো গ্রেফতার করতে পারেননি। এঘটনায় থানা পুলিশের সর্বোচ্চ পর্যায়ের কর্তা জানিয়েছেন, আসামি কাজল মোবাইল ফোন ব্যবহার না করার কারণে তাকে গ্রেফতার করতে বিলম্ব হচ্ছে। তবে আসামি ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা।
হত্যার চেয়ে অ্যাসিড নিক্ষেপের অপরাধ বা ধর্ষণের অপরাধ কি কোন অংশে কম অপরাধ? না, হত্যা, অ্যাসিড ও ধর্ষণের অপরাধ কোনোটার চেয়ে কোনটা কম অপরাধ নয়। অবশ্যই এসব অপরাধের সাথে জড়িতদেরও দ্রুত আইনের আওতায় আনতে হবে।
উপরোক্ত দুটি ঘটনা ছাড়াও আরও অনেক ঘটনা ঘটেছে আমাদের স্বপ্নময় সুন্দরগঞ্জে। এসব ঘটনার মূল অপরাধীরা এখনো ধরাছোঁয়ার বাহিরে। এসব ঘটনার আসামিদের দ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে আসা খুবই জরুরি। এদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে এসে শাস্তির ব্যবস্থা করতে পারলেই পুলিশ প্রশাসন প্রশংসার সাগরে ভাসবে। তখন নির্যাতিতরা মনে মনে আনন্দ পাবে। প্রকৃত অর্থে তখনি পুলিশ বাহিনী সবার ভালোবাসা, বাহবা, অভিনন্দন ও ধন্যবাদ পাবে।
লেখক- সুদীপ্ত শামীম, কোষাধ্যক্ষ. সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাব, গাইবান্ধা।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | জাগো২৪.নেট

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন