রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১২:৪১ অপরাহ্ন

ঘোড়াঘাটে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত-১ আহত  ৬

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট, জাগো২৪.নেট. বিরামপুর )দিনাজপুর)
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে ইঞ্জিনচালিত যাত্রীবাহী ভ্যানে সঙ্গে গরুবাহী নসিমনের ধাক্কায় আলতাব হোসেন (৪৫) নামে এক ভ্যানযাত্রী নিহত হয়েছেন। গুরুতর আহত হয়েছেন নসিমনে থাকা আরো ৬ জন গরু ব্যবসায়ী।

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদেরকে উদ্ধার করে ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। নিহত ও আহতরা সকলে রানীগঞ্জ গরুর হাটে যাচ্ছিলেন বলে জানা যায়।

বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে উপজেলার রানীগঞ্জে দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক মহাসড়কের ব্যাক অফিস সংলগ্ন এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ভ্যানযাত্রী আলতাব হোসেন দিনাজপুর জেলার হাকিমপুর উপজেলার বোয়ালদার ইউনিয়নের ষষ্ঠীপাড়া গ্রামের রহমান আলীর ছেলে।

গুরুতর আহতরা হলেন, বিরামপুর উপজেলার কসবা গ্রামের মৃত হাফিজউদ্দীনের ছেলে ফারুক ইসলাম (৫০), একই গ্রামের নাসিরুদ্দীনের ছেলে ইসরাফিল (২১) ও ইমরান মিয়া (৪০), মুকন্দপুর গ্রামের রিয়াজউদ্দীনের ছেলে আঃ রশিদ (৫৫) ও রফিকুল ইসলাম (৪০) এবং নবাবগঞ্জ উপজেলার দাউদপুরের শফিকুল ইসলাম (৩৩)।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, দুপুরে নবাবগঞ্জের ভাদুরিয়া বাজার থেকে ইঞ্জিনচালিত ভ্যানে কয়েকজন রানীগঞ্জ গরুহাটিতে যাচ্ছিল। একইসময় গরুবাহী একটি নসিমন ওই হাটের দিকে যাবার সময় পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই একজন মারা যায়। আহত হয় দুটি বাহনে থাকা আরো ৬ জন।

ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের দায়িত্বে থাকা মেডিকেল অফিসার ডাঃ সাদিয়া আফরিন বলেন, আহত ৬ জনের মধ্যে ১ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষ ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি ৫ জনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদেরকে রংপুর ও বগুড়া মেডিকেলে স্থানান্তর করা হয়েছে। তাদের হাত-পা ভেঙে গেছে এবং মাথায় গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হওয়ায় নাক-মুখ দিয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছিল।
ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, দুর্ঘটনায় পতিত দুটি বাহন আমাদের হেফাজতে আছে। মরদেহ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। নিহতের পরিবারকে খবর দিয়েছি। তারা এলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | জাগো২৪.নেট

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন